রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১

কামারখন্দে ব্যাটারি চালিত রিক্সা ভ্যান শ্রমিকদের মানববন্ধন

  •  
  •  
  •  
  •  

কামারখন্দ প্রতিনিধি:

দুনিয়ার মজদুর এক হও স্লোগানকে সামনে রেখে। ব্যাটারি চালিত রিক্সা ভ্যান বন্ধে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর বক্তব্য ও ঘোষণা প্রত্যাহার ও বাতিলের দাবিতে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে জেলার ব্যাটারি চালিত রিক্সা ও ভ্যানচালক সংগ্রাম কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) সকাল সাড়ে ১১ টায় জামতৈল রেলওয়ে স্টেশনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ব্যাটারি চালিত রিক্সা – ভ্যানের সাধারণ সম্পাদক এম.আশরাফ সরকারের নেতৃত্বে বক্তব্য দেন বেলকুচি ভ্যান রিক্সা – শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো.কেরামত আলী।

তিনি বলেন, ১৮৮৬ সালে শ্রমিক আন্দোলন হয়। এই শ্রমিক আন্দোলনের জন্যই সরকারি কর্মকর্তা -কর্মচারীরা ৮ ঘন্টা ডিউটি করছেন। আমার রিক্সা শ্রমিক ভাইয়েরা সরকারি চাকুরী করে না। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে সংসার চালান ও ছেলে মেয়েদের পড়াশোনা খরচ চালান। আর সেই শ্রমিকদের পেটে লাথি মারতে চাচ্ছেন। ভ্যান রিক্সার জন্য যদি রাস্তায় জ্যাম হয় তাহলে আকাশ দিয়ে রাস্তা বানান। প্রায় ১০ লাক্ষ শ্রমিক ব্যাটারি চালিত ভ্যানের সাথে জরিত আছে। আমাদের মাঠে নামাবেন না।

ব্যাটারি চালিত ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এম আশরাফ বলেন, এক থেকে দেড় কোটি শিক্ষিত বেকার রয়েছে। আমরা রিক্সা শ্রমিকেরা বলি নাই আমাদের সরকারি চাকুরী দিতে হবে। আমরা ব্যাটারি চালিত ভ্যান চালিয়ে ৫ সদস্য পরিবারের সংসার চালাই। আমরা আমাদের নিজেদের কর্মসংস্থান নিজেরাই তৈরী করেছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন ব্যাটারি চালিত ভ্যান রিক্সা দিনে আড়াই ইউনিট বিদ্যুৎ খরচ হয়। এজন্য এগুলো বন্ধ করতে হবে।

আমরা শ্রমিকেরা যুক্তি দেখাচ্ছি সরকারী আমলারা বা কোটিপতিরা রয়েছেন তাদের আরাম আয়েশের জন্য প্রতি ঘন্টায় এসিতে বিদ্যুৎ খরচ হয় আড়াই ইউনিট। আর আমাদের সারাদিন ব্যাটারি চালিত ভ্যানে বিদ্যুৎ খরচ হয় দুই থেকে আড়াই ইউনিট।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আপনাকে বলতে চাই গোডাউনে গম বন্দী, চাল বন্দী, খাটের নিচে তেল বন্দী, লন্ডনে তারা বেগম বাড়ি বানায় আর গরীবেরা সব মরে, এই হচ্ছে আমাদের দেশের অবস্থা। আমাদের ভ্যান চালক শ্রমিকদের পেটে লাথি মারবে না।

জেলা বাসদ আহবায়ক নব কুমার কর্মকার বলেন, দেশে করোনায় ৬২ শতাংশ মানুষ বেকার হয়েছে। খুব কষ্ট করে জীবন যাপন করছে আর এর মধ্যে আপনারা ব্যাটারি চালিত ভ্যান রিক্সা বন্ধ করতে চাচ্ছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহেব আপনার দেওয়া বক্তব্য ও ঘোষণা প্রত্যাহার করুন আমাদের মাঠে নামাবেন না।

বাংলাদেশ জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মো. সজীব আহমেদ মন্ডল(২৭) বলেন, আমার ভাই শ্রমিক, আমার বাবা শ্রমিক আমাদের টাকায় সরকার চলে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তি দেখিয়েছেন ঘন্টায় আড়াই ইউনিট বিদ্যুৎ খরচ হয় এজন্য আমাদের ব্যাটারি চালিত ভ্যান বন্ধ করতে হবে। আপনারা যে এসির মধ্যে ঘুমান, সেই এসি ঘন্টায় বিদ্যুৎ খরচ হয় আড়াই ইউনিট। আমাদের শ্রমিকদের পেটে লাথি মারা পাইতারা করবেন না তাহলে কেউ টিকে থাকতে পারবেন না।

এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ভ্যান শ্রমিকনেতাসসহ নানা শ্রেণীর মানুষ।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

x