বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১

তাড়াশে কৃষককে পেটালেন চেয়ারম্যান

  •  
  •  
  •  
  •  

তাড়াশ(সিরাজগঞ্জ)প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে জমিজমা সংক্রান্তের জের ধরে সৃষ্ট বিবাদে ছাকোয়াত আলী (৪৫) নামের কৃষক পেটালেন চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা। মো: মোক্তার হোসেন মুক্তা উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

সোমবার বিকালে তাড়াশ থানায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে তাড়াশ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। অপরদিকে বারুহাস ইউপি চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা ওই কৃষকের নামে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন ওসি মো: ফজলে আশিক।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, একই ইউনিয়নের পলাশী গ্রামের ছাকোয়াত আলী (৪৫) সাড়ে ১৬ শতক জমি ক্রয় করেছেন। সেই নিজের দাবী করে বারুহাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা ও তার লোকজন কৃষক ছাকোয়াত আলীকে মারধর করেছেন।
কৃষক ছাকোয়াত আলী বলেন, তার নিকটবর্তী বস্তুল গ্রামের আব্দুল মতিন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ২০১৪ সালে পলাশী গ্রামের দক্ষিণ মাঠের সারে ১৬ শতক জমি কিনে নেন। ওই জমিতে সে যথারীতি ধানের আবাদ করে আসছিলেন।

এদিকে বারুহাস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা ও আব্দুল মতিনের কাছ থেকেই ২০১৯ সালে ২১ শতক জমি কিনেছেন। সে জমিও দিনমজুর ছাকোয়াত আলীর কেনা জমির আইল ঘেষে। গত (৩ জানুয়ারি) রবিবার দুপুরের দিকে চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা কয়েকজন শ্রমিককে দিয়ে তার জমিতে জোরপূর্বক চাষের জন্য পরিচর্যার কাজ করাতে থাকেন। তখন বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হলে চেয়ারম্যানের সহদর ভাই মনি ও ভাগ্নে আলমাহমুদ, জানমাহমুদসহ বেশ কয়েকজন মিলে ছাকোয়াত হোসেন, তার স্ত্রী হোসনেয়ারা খাতুন ও তার দুই ছেলে তারিকুল ও ছানোয়ারকে জমির মধ্যেই বেধরক মারধর করেন।

ছাকোয়াতের স্ত্রী হোসনেয়ারা খাতুন বলেন, চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তার উপস্থিতিতেই তার লোকজন মারধর করেছেন। চেয়ারম্যান নিজেও তার ছোট ছেলে ছানোয়ারকে (১৪) কুসুম্বী-পলাশী আঞ্চলিক সড়কের উপর ধরে এলোপাথাড়ি লাথি মেরেছেন। সর্বপরি তিনি হুমকী দিয়েছেন “জমির দখল নিতে বাধা দিলে সেচ যন্ত্র চুরির মামলা দিয়ে বাড়ি ছাড়া হবে। ”

বারুহাস ইউপি চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা বলেন, তার খাজনা-খারিজ করা জমিতে ছাকোয়াতরা জোরপূর্বক আইল ভেঙে দিচ্ছিলেন। তিনি শুধু তাদেরকে সরিয়ে দিয়েছেন মাত্র।

তাড়াশ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলে আশিক বলেন, উভয় পক্ষই অভিযোগ করেছেন। আইনানুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

x