রবিবার, ১৬ মে ২০২১

নবীকে অপমানের বিরুদ্ধে আইন চান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

পশ্চিমা দেশগুলোতে নবী হযরত মুহম্মদ সাঃ কে অপমান অপরাধভুক্ত করতে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস আহ্বান করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সোমবার টেলিভিশনে প্রচারিত এক বক্তৃতায় তিনি এই আহ্বান জানান।

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ থেকে জাতির উদ্দেশে দেয়া বক্তৃতায় ইমরান খান বলেন, মুহম্মদ সাঃ কে অবমাননা ব্লাসফেমি (ধর্ম অবমাননা অপরাধ) হিসেবে গণ্য করতে পশ্চিমা বিশ্বকে রাজি করাতে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশসমূহে তিনি প্রচারণা চালাবেন।

ইমরান খান বলেন, বাক স্বাধীনতার নামে যখন তারা রাসুলকে অপমান করে তখন আমরা কেন কষ্ট পাই, সেটা তাদের কাছে আমাদের ব্যাখা করা প্রয়োজন। যখন ৫০টি মুসলিম দেশ ঐক্যবদ্ধ হবে এবং বলবে, যদি রাসুলকে অপমান করা হয়, তাহলে আমরা বাণিজ্য বয়কট করব এবং তাদের পণ্য কিনব না; তখন তার একটা ফল পাওয়া যাবে।

পাক প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়টিকে হলোকাস্টের সঙ্গে সম্পৃক্ত করেন। হলোকাস্ট হলো দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় জার্মানি কর্তৃক ইহুদি গণহত্যা। এই গণহত্যার সপক্ষে কেউ কথা বলতে পারবে না বলে পশ্চিমা দেশে বিধান রয়েছে। ইমরান খান বলেন, ‘পশ্চিমা দেশসমূহ বুঝেছে, ইহুদি নিধন তথা হলোকাস্ট নিয়ে প্রশ্ন তুললে ইহুদি গোষ্ঠী আঘাত পান। ইসলামের শেষ নবী হযরত মুহম্মদ সাঃ কে অপমানের বিষয়টিও একইভাবে বিবেচনা করা উচিত।’

ফ্রান্সে গত বছর ইসলামবিরোধী ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন প্রকাশের পর থেকে পাকিস্তানে মাঝে মধ্যেই বিক্ষোভ করে আসছে তেহরিক ই লাব্বায়িক পার্টি নামে ইসলামপন্থি একটি সংগঠন। চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে পাকিস্তানে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার এবং তাদের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করার দাবিতে হাজার হাজার ইসলামপন্থীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এতে পুলিশের ছয়জন কর্মকর্তাসহ অন্তত ১০ জন নিহত হয়। এছাড়া ওই দলটি ছয়জন পুলিশকে জিম্মি করে। এরপর পাকিস্তান সরকার দলটির সঙ্গে সমঝোতার জন্য বৈঠক করে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

x