প্রবল বর্ষণ-বন্যায় চীনে শতাধিক ভূমিধস, নিহত ৭


দৈনিক সিরাজগঞ্জ ডেস্ক প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ১২, ২০২৩, ৯:১৫ অপরাহ্ন /
প্রবল বর্ষণ-বন্যায় চীনে শতাধিক ভূমিধস, নিহত ৭

টাইফুন হাইকুই’র প্রভাবে প্রবল বর্ষণ ও বন্যায় চীনের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশের গুয়াংশি’র বিভিন্ন এলাকায় শতাধিক ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় নিহত হয়েছেন অন্তত ৭ জন এবং এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ৩ জন।

এছাড়া ভূমিধসের কারণে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার গুরুতর ক্ষয়ক্ষতি হওয়া ও বন্যার কারণে প্রদেশের বিভিন্ন গ্রাম ও শহরে আটকা পরেছেন অন্তত ১ হাজার ৩৬০ জন মানুষ।

আট দিন আগে চীনের দক্ষিণাঞ্চলে আঘাত হেনেছিল দক্ষিণ চীন সাগর থেকে উদ্ভূত টাইফুন হাইকুই। কিন্তু দিন গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে দুর্বল হয়ে গেলেও পুরোপুরি বিদায় নেয়নি হাইকুই, বরং পরিণত হয়েছে মৌসুমি ঝড়-বৃষ্টিত। গুয়াংশির বেশিরভাগ শহর ও গ্রামে গত আটদিন ধরে ঝড়-বৃষ্টি হচ্ছে।

গুয়াংশি প্রদেশের প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুসারে ঝড়-বৃষ্টিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দক্ষিণ চীন সাগরের উপকূলবর্তী দুই শহর ইউলিন এবং বেইহাই। গত সাত দিনে এই দুই শহরে মোট ১১৫টি ভূমিধস হয়েছে এবং এসব ভূমিধস ও বন্যার জেরে শহরের বিভিন্ন এলাকায় আটকা পড়েছেন হাজারেরও অধিক মানুষ।

স্বায়ত্বশাসিত ভূখণ্ড হংকংয়ের সীমান্তবর্তী গুয়াংশি প্রদেশ হাউকুই আঘাত হেনেছিল গত ৫ সেপ্টেম্বর। এই টাইফুনের প্রভাবে গুয়াংশির প্রধান ও সবচেয়ে জনবহুল শহর শেনজেনে গত ৫ ও ৬ সেপ্টেম্বর যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে, তা শহরটির গত ৭০ বছরের বৃষ্টিপাতের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

আর হংকংবাসী গত ১৪০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত দেখেছে গত ৫ ও ৬ সেপ্টেম্বর।

সাগর থেকে দূরবর্তী শহর ও গ্রামগুলোর আবহওয়া অনেকটা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এলেও সাগর তীরবর্তী শহর ও গ্রামগুলোতে এখনও বিরাজ করছে ঝড়ো আবহাওয়া।