গোবিন্দগঞ্জে এক লম্পট কর্তৃক সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ


দৈনিক সিরাজগঞ্জ ডেস্ক প্রকাশের সময় : অগাস্ট ১৩, ২০২৩, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন /
গোবিন্দগঞ্জে এক লম্পট কর্তৃক সাড়ে ৩ বছরের শিশুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের কোচাশহর ইউনিয়নে পায়েল নামে এক লম্পট কর্তৃক সাড়ে ৩ বছরের এক কন্যা শিশুকে মুখ বেধে জোরপূর্বক ধর্ষন করে।শিশুটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরনে আশংকাজনক অবস্থায় বগুড়া (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কোচাশহর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর বাজিদপুর গ্রামের দিনমজুর কামরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে তার সাড়ে ৩বছরের শিশু কন্যাকে বাড়ীতে রেখে জীবিকার তাগিদে বাড়ীর বাহিরে অবস্থান করলে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর জাইদুল ইসলামের ছেলে লম্পট পায়েল ওই শিশু কন্যাকে প্রলোভন দিয়ে নিজ বাড়ীতে ডেকে নিয়ে গিয়ে মুখচেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষন করে।এতে কন্যা শিশুটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে শিশুটিকে ঘরের বাহিরে রাস্তায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
পরে প্রতিবেশীরা শিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখে শিশুটিকে উদ্ধার করে বাড়ীতে নিয়ে যায় ও তার বাবা ও মাকে খবর দেয়।

এখবর পেয়ে শিশুটির বাবা মা শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রথমে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে শিশুটির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে রেফার্ট করে। দরিদ্র শিশুটির বাবা মা শিশুটিকে নিয়ে যখন উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া নিয়ে যাওয়ার জন্য রওনা হন পথে মধ্যে ফাঁসিতলা এলাকায় লম্পটের বাবা ও মা বাঁধা দেন।
মিমাংসায় বসাসহ এবং স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্য চাপ সৃষ্টি করে,এরই একপর্যায়ে ফের স্থানীয়দের সহায়তায় শিশুকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে গোবিন্দগঞ্জ থানায় এজাহার দায়ের হয়েছে বলে জানা গেছে।