গাইবান্ধার পলাশবাড়ী থানা পুলিশ ১টি মোটর সাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৯ জনকে আটক করেছে


দৈনিক সিরাজগঞ্জ ডেস্ক প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২২, ২০২৩, ৩:১২ অপরাহ্ন /
গাইবান্ধার পলাশবাড়ী থানা পুলিশ ১টি মোটর সাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৯ জনকে আটক করেছে

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী থানা পুলিশ ১টি চোরাই মোটর সাইকেলসহ আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৯ জন সদস্যকে উদয়সাগর মৌজার পলাশবাড়ী-গাইবান্ধা সড়কের কাছে থেকে আটক করেছে।

পুলিশ সুপার, গাইবান্ধা মহোদয়ের দিক নির্দেশনা মোতাবেক অফিসার ইনচার্জ, পলাশবাড়ী থানার তত্ত্বাবধানে পলাশবাড়ী থানা পুলিশের একটি চৌকশ দল পলাশবাড়ী থানার জিডি নং-৮৪৪, তাং-১৯/০৯/২০২৩ খ্রিঃ মূলে বাদীর চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল ও অজ্ঞাতনামা চোর বা চোরদের গ্রেফতারের অভিযান করাকালে প্রাপ্ত তথ্য ও তথ্য প্রযুক্তির ভিত্তিতে তদন্তে সন্দিগ্ধ আসামী ১। মোঃ তাহসিন সরকার @ তাওহিদ (১৯), ২। মোঃ জাহিদ হাসান (২০),৩। মোঃ ফরহাদ ইসলাম (২৫), গন‘কে পলাশবাড়ী থানাধীন উদয় সাগর মৌজাস্থ গাইবান্ধা টু পলাশবাড়ী আঞ্চলিক সড়কের উপর হইতে ইং-১৯/০৯/২০২৩ তারিখ রাত্রী ০০.৫০ ঘটিকার সময় গ্রেফতার করেন। তাহাদের প্রাথমিক জিজ্ঞসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যর ভিত্তিতে তদন্তে সন্দিগ্ধ ধৃত আসামী ৪। মোঃ মামুন সরকার (২৭), ৫। মোঃ হৃদয় মন্ডল @ নুর ইসলাম (২৩), ৬। মোঃ নাজমুল হক (২০), ৭। মোঃ নয়ন সরকার (২৮), গন‘কে পলাশবাড়ী থানাধীন শিবরামপুর মৌজাস্থ পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর গেইটের সামনে হইতে ইং-১৯/০৯/২০২৩ তারিখ রাত্রী ০১.২০ ঘটিকার সময় গ্রেফতার করিয়া থানায় হাজির হন।
পরবর্তীতে উক্ত তদন্তে সন্দিগ্ধ গ্রেফতারকৃত আসামীগনদের অত্র থানায় পুলিশ হেফাজতে নিবিড় জিজ্ঞাসাবাদে তদন্তে সন্দিগ্ধ আসামী মোঃ জাহিদ হাসান এবং মোঃ ফরহাদ ইসলাম জানায় যে, তাহারা অপরাপর তদন্তে সন্দিগ্ধ ধৃত আসামীগনের সহযোগিতায় বাদীর মোটরসাইকেলটি চুরি করতঃ ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গি থানাধীন কোটপাড়া মৌজাস্থ শ্রী মন্টু পাল এর নিকট ইং-০৫/০৯/২০২৩ তারিখ, ২০,০০০/-(বিশ হাজার) টাকার বিনিময়ে বাদীর চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি বিক্রয় করেন। ধৃত আসামীদ্বয়ের এহেন তথ্যর ভিত্তিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করিয়া পলাশবাড়ী থানা পুলিশের একটি চৌকশ দল ধৃত আসামী মোঃ জাহিদ হাসান ও মোঃ ফরহাদ হোসেনকে সঙ্গে লইয়া চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি উদ্ধার অভিযান পরিচালনার নিমিত্তে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশেক্রমে ইং-১৯/০৯/২০২৩ তারিখ সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গি থানার উদ্দেশ্যে রওনা হইয়া উক্ত তারিখ রাত্রী অনুমান ০৪.৩০ ঘটিকার সময় উপস্থিত হইয়া বালিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশের সহায়তায়ে একই তারিখ ভোর ০৫.২০ ঘটিকার সময় বালিয়াডাঙ্গী থানাধীন কোটপাড়া মৌজাস্থ তদন্তে সন্দিগ্ধ আসামী শ্রী মন্টু পাল এর নিজ বসতবাড়ী হইতে গ্রেফতার করিয়া সূত্রোক্ত মামলার বাদীর চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটির বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

জিজ্ঞাসাবাদ কালে ধৃত আসামী ০৮। শ্রী মন্টু পাল উল্লিখিত চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি অপরাপর ধৃত আসামী মোঃ জাহিদ হাসান ও মোঃ ফরহাদ হোসেন এর নিকট হইতে ২০,০০০/-(বিশ হাজার) টাকায় ক্রয় করিয়া বালিডাঙ্গি থানাধীন উদয়পুর মৌজাস্থ মোঃ মফিজুল ইসলাম এর নিকট ৩০,০০০/-(ত্রিশ হাজার) টাকার বিনিময়ে বিক্রয় করিয়াছে মর্মে স্বীকার করে। একই তারিখ ভোর ০৫.৫০ ঘটিকার সময় ধৃত আসামী শ্রী মন্টু পাল এর তথ্যর ভিত্তিতে বালিডাঙ্গি থানাধীন উদয়পুর মৌজাস্থ তদন্তে সন্দিগ্ধ আসামী ০৯। মোঃ মফিজুল ইসলাম এর বসতবাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করিয়া তাহাকে গ্রেফতার করে এবং তাহার দেখানো মতে তাহার শ্বয়ন কক্ষ হইতে চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি উদ্ধার পূর্বক জব্দ করে।

পলাশবাড়ী থানার জিডি নং-৮৬৩, তাং-১৯/০৯/২০২৩ খ্রিঃ মূলে দুপুর ১৪.২০ ঘটিকার সময় ধৃত আসামীগন ও জব্দকৃত মালামালসহ থানায় আসিয়া হাজির হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তদন্তে সন্দিগ্ধ ধৃত আসামীগনের বিরুদ্ধে ঘটনার সহিত জড়িত থাকার বিষয়ে সাক্ষ্য প্রমান পাওয়া যাইতেছে। তদন্তে আরো জানা যায় যে আসামীগন নিয়মিত ভাবে পলাশবাড়ী থানা এলাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় মোটরসাইকেল চুরি ও ছিইতাই করিয়া থাকে। তাহাদের প্রকাশ্য কোন জীবিকা বা পেশা নেই। চুরি করাই তাহাদের একমাত্র পেশা। মামলাটির তদন্ত অব্যাহত আছে।

উল্লেখ্যঃ অজ্ঞাতনামা চোর বা চোরেরা গত ৩০/০৮/২০২৩ খ্রিঃ রাত্রী অনুমান ১০.০০ ঘটিকা হইতে রাত্রী অনুমান ১১.৫০ ঘটিকার মধ্যে যে কোন সময় অত্র থানাধীন নুনিয়াগাড়ী মৌজাস্থ পলাশবাড়ী থানাধীন পলাশবাড়ী এসএম হাইস্কুল মার্কেট এর গলির ভিতরে আল মদিনা কাপড়ের দোকানের সামনে হইতে বাদীর একটি টিভিএস ব্রান্ড এ্যাপাসি আরটিআর ১৬০ সিসি মোটরসাইকেল, যাহার চেসিস নং-MD634KE48J2A64832, ইঞ্জিন নং-0E4EJ2219502, রং-লাল কালো, যাহার মূল্য-১,৭০,০০০/-(এক লক্ষ সত্তর হাজার) টাকা মোটরসাইকেলটি অসৎ উদ্দেশ্যে চুরি করিয়া লইয়া যায়। বাদীর উক্তরুপ ঘটনার এজাহার পাইয়া অফিসার ইনচার্জ পলাশবাড়ী থানা, পলাশবাড়ী থানার এফ আই আর নং-২০/২১৫, তারিখ-১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩; জি আর নং-২১৫, ধারা-৩৭৯ পেনাল কোড-১৮৬০ রজু করেন।

পুলিশ সুপার, মহোদয়ের নির্দেশনা মোতাবেক জেলা পুলিশ গাইবান্ধা সকল অপরাধের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান পরিচালনা করে যাচ্ছে।