সিরাজগঞ্জ -৫ আসনে নৌকার পথে বাধা লতিফ বিশ্বাসের ঈগল


দৈনিক সিরাজগঞ্জ ডেস্ক প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৮, ২০২৩, ৪:৫৫ অপরাহ্ন /
সিরাজগঞ্জ -৫ আসনে নৌকার পথে বাধা লতিফ বিশ্বাসের ঈগল

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জ-৫ (বেলকুচি-চৌহালী) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আব্দুল মমিন মণ্ডলের নৌকার পথে বাধা সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী আবদুল লতিফ বিশ্বাসের প্রতীক ঈগল।

সাবেক এই মন্ত্রী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় পাল্টে যাচ্ছে হিসাব-নিকাশ। কে জয়ী হবেন, তা নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। তবে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি-এমনটাই করছেন ভোটাররা।

জানা গেছে, একসময় আসনটি দখলে ছিলো সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের। তিনি এই আসন থেকে ১৯৯৬ ও ২০০৮ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর তিনি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তবে ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত হন। মনোনয়ন পান শিল্পপতি আব্দুল মজিদ মণ্ডল। এরপর থেকে এই আসনের নিয়ন্ত্রণ চলে যায় আব্দুল মজিদ মণ্ডলের পরিবারের হাতে। এখান থেকেই লতিফ বিশ্বাস ও আব্দুল মজিদ মণ্ডলের পরিবারের বিরোধ শুরু হয়। ২০১৮ সালে এই আসনে মনোনয়ন পান আব্দুল মজিদ মণ্ডলের ছেলে আব্দুল মমিন মণ্ডল। পরে আব্দুল মমিন মণ্ডল (নৌকা) এবং লতিফ বিশ্বাসকে  সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

বেলকুচি উপজেলার দেলুয়া এলাকার আব্দুল মজিদ শেখ বলেন, ‘খুব বিপদে পড়েছি। একজন নৌকা নিয়ে এসেছেন, আরেকজন পুরোনো নেতা। কে ভোটে উঠবে, তা বলা যাচ্ছে না। তবে নৌকা এবং ঈগলের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।’

এ বিষয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাকিম মন্ডল জানান, ‘দলের ঊর্ধ্বে কেউ নয়। আওয়ামী লীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আব্দুল মমিন মণ্ডলকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। দলের কর্মী-সমর্থকেরা তাকে বিজয়ী করতে কাজ করছেন। এই আসনে মমিন মণ্ডলের বিকল্প নেই। তিনি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। নদীভাঙন রোধে প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। এলাকার মানুষ তাঁর উন্নয়নে খুশি। আগামী ৭ জানুয়ারি নৌকা বিজয়ী হবে।’