ইউক্রেনের বিরুদ্ধে হামলা আরও তীব্র করার ঘোষণা দিয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন।


দৈনিক সিরাজগঞ্জ ডেস্ক প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ২, ২০২৪, ১১:০৬ পূর্বাহ্ন /
ইউক্রেনের বিরুদ্ধে হামলা আরও তীব্র করার ঘোষণা দিয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন।

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে হামলা আরও তীব্র করার ঘোষণা দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তাছাড়া প্রায় দুই বছর ধরে চলা এ যুদ্ধ খুব দ্রুতই শেষ করতে চান বলে জানিয়েছেন তিনি।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজধানী মস্কোর একটি সামরিক হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় পুতিন বলেছেন, রুশ সেনাবাহিনী ইউক্রেনের সামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা করা অব্যাহত রাখবে। হামলার মাত্রা আর তীব্র করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ইউক্রেনের পশ্চিমা মিত্ররা এই যুদ্ধ থামাতে দিচ্ছে না। তবে সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোর বক্তব্য পরিবর্তন হতে শুরু করেছে। কারণ তারা বুঝতে শুরু করেছে যে রাশিয়াকে পরাজিত বা ধ্বংস করা সম্ভব না।

এদিকে, রুশ প্রেসিডেন্টের এসব বক্তব্যের জবাবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, ২০২৩ সালে রাশিয়া আমাদের একটি বড় শহরও দখল করতে পারেনি। সুতরাং যুদ্ধে রাশিয়া জিততে চলেছে বলে পুতিন যে ইঙ্গিত দিয়েছেন, তা কেবলই কল্পনা।

দ্য ইকোনমিস্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেন জেলেনস্কি। তবে গত ২৫ ডিসেম্বর ইউক্রেনের দনবাস অঞ্চলের প্রধান একটি শহর মারিংকা দখলের দাবি করে রাশিয়া। বিষয়টি পরবর্তী সময়ে নিশ্চিতও করেন ইউক্রেনে সেনাপ্রধান ভ্যালেরি জালুঝনি।

পশ্চিমা মিত্রদের প্রতি হতাশা প্রকাশ করে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, আমাদের মিত্ররা খুব জরুরি সময়ে কী করা প্রয়োজন সেই বোধ হারিয়েছে। তবে নতুন বছরের শুরুতে দেওয়া ভাষণে জেলেনস্কি তার দেশে উৎপাদিত অস্ত্রের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তিনি কমপক্ষে ১০ লাখ ড্রোন তৈরির প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।

রাশিয়া ও ইউক্রেন গত কয়েকদিন ধরে প্রাণঘাতী হামলা ও পাল্টা হামলা চালিয়েছে। ইউক্রেন নববর্ষের ঠিক আগ মুহূর্তে রাশিয়া নিয়ন্ত্রিত শহর দোনেৎস্কে গোলাবর্ষণ করেছে। সেখানে নিযুক্ত রুশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইউক্রেনের এই হামলায় অন্তত চারজন নিহত ও ১৩ জন আহত হয়েছে।

তাছাড়া শনিবার (৩০ ডিসেম্বর, ২০২৩) রাশিয়ার বেলগোরোদে বিমান হামলা চালায় ইউক্রেন। তাতে ২৫ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়। তাদের মধ্যে এক শিশুও রয়েছে। পুতিন এই হামলাকে বেসামরিক নাগরিকদের উপর কিয়েভের পরিকল্পিত ও ইচ্ছাকৃত হামলা বলে দাবি করেছেন।

এর আগে গত সপ্তাহে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি শহরে ব্যাপক হামলা চালায় রাশিয়া। তাতে কমপক্ষে ৪৫ জন নিহত হয়। এই হামলাগুলোকে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা বলে অভিহিত করেছে কিয়েভ।

সুত্র:আল জাজিরা

 

দৈসি/ মো আ