শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১

মাহবুবা খাতুন বেগম রোকেয়ার পথ অনুসরণ করে এগিয়ে চলছেন জীবনের সাথে সংগ্রাম করে

  •  
  •  
  •  
  •  

মোছা: মাহবুবা খাতুন পিতা আব্দুল কাদের । বাড়ি চান্দাইকোনা, রায়গঞ্জ ,সিরাজগঞ্জ। ২০০১ সালে নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী ছিলাম। নবম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় পারিবারিক সিদ্ধান্তেই আমার বিয়ে হয়ে যায় ।আমার সামনে তখন ঘোর অন্ধকার। কিন্তু স্বপ্নকে মরে যেতে দেইনি ।ছোটবেলা থেকেই আমার স্বপ্ন ছিল নিজে প্রতিষ্ঠিত হওয়া এবং এই সমাজে নিজের পরিচয় তুলে ধরার ।তাই সংসারের সকল ব্যস্ততার মাঝেও লেখাপড়া টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করি।২০০৩ সালে চান্দাইকোনা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করি। তখন আমি সন্তান সম্ভবা। তার পরেও আমি মনোবল নিয়ে এইচ এস সি তে সায়েন্স নিয়ে ভর্তি হই ।এইচএসসি প্রথম বর্ষে আমি সন্তানের মা হই। তখন আরো অনেক বেশি কষ্ট করতে হয়েছে আমাকে । সংসার ,ছোট বাচ্চা ,আবার সাইন্সের এত পড়ার চাপ ।ছেলে অসুস্থ হলে তাকে কোলে নিয়ে সারারাত দাঁড়িয়ে থেকে লেখাপড়া করেছি। এভাবে চড়াই উতরাই করতে করতে ২০০৬ সালে চান্দাইকোনা হাজী ওয়াহেদ মরিয়ম অনার্স কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করি।

একই কলেজে আমি আবার বিএসসি তে ভর্তি হই। যদিও আমার ক্ষেত্রে বিএসসি পড়া বেশ চ্যালেঞ্জ ছিল। এক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা পেয়েছি আমার মা এবং কলেজের প্রিন্সিপাল শামসুল হুদা স্যারের কাছে।আমি মনোযোগ দিয়ে লেখা পড়া করার চেষ্টা করেছি।আমার ছেলে অস্তে অস্তে বড় হতে থাকে।আমরা মা ছেলে এক টেবিলে লেখা পড়া করেছি।ছেলের লেখাপড়া ,আমার লেখাপড়া, সংসার , জীবন সব এক সাথে টিকিয়ে রাখাতে অনেক কষ্ট ও প্রতিকূলতার সন্মুখীন হতে হয়েছে।

আমি ২০১০ সালে বি এস সি পাশ করেছি।২০১৩ সালে গণিত ও সাধারণ বিজ্ঞান বিষয়ে নিবন্ধন পাশ করেছি। ১৮/০৯/১৪ইং ভূঞাগাঁতী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গণিত ও সাধারণ বিজ্ঞান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করি।নিষ্ঠার সহিত আমার অর্পিত কাজের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি।পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য ২০১৭ সালে রাজশাহী টিচার্স ট্রেনিং কলজ থেকে বি এড কোর্স সম্পন্ন করি।আমি শিক্ষক বাতায়ন একজন সদস্য।

১৮/০২/২০১৮ সালে এটু আই কর্তৃক আই সিটি ফরই (ICT4E) সিরাজগঞ্জ জেলা এম্বাসেডর নির্বাচিত হয়। ০৪/০৫/২০১৮ ইং তারিখে শিক্ষক বাতায়নে সের কনটেন্ট নির্মাতা নির্বাচিত হই।আমি নিয়মিত শিক্ষক বাতায়ন,কিশোর বাতায়নে কনটেন্ট আপলোড করি এবং ব্লগ লিখি।মুক্ত পাঠের বিভিন্ন কোর্স থেকে ১০০টি সার্টিফিকেট অর্জন করি। দেশের এই করোনা মহামারীতে যখন দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেলো, তখন অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সক্রিয় রাখার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকি।
আমি ০৪/০৪/২০২০ ইং তারিখ হতে আমি আমার স্কুলের পেজ সহ দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় অনলাইন স্কুল পেজে ক্লাস নিয়েছি।আমি ১০০ টির বেশি লাইভ ক্লাস নিয়েছি। শিক্ষা ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজেশন করার লক্ষ্যে প্রধান মন্ত্রীর পদক্ষেপ বাস্তবায়নে লক্ষে বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি ।শিক্ষকতার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজের সাথে জড়িত আছি।

দিনে দিনে আমাদের মাঝ থেকে হারিয়ে যাচ্ছেদিনে দিনে আমাদের মাঝ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ ।সন্তানদের সবুজ প্রকৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে, নিজের ও পারিবারিক প্রশান্তির জন্য ছাদ বাগানটি করা। এছাদ বাগানটিতে রয়েছে ফুল- ফল, শাক-সবজি ,বনসাই ,ক্রাকটাস, দেশীয় বিলুপ্ত প্রজাতি, বিশেষ প্রজাতির সহ নানা প্রজাতির ১৫০ রকমের গাছ।

একটা গাছ কে বড় করে তুলতে সন্তানের মত যত্ন করতে হয় ।তাদের সকল অনুভূতি বুঝতে হয়, নিজের মন দিয়ে ।গাছ থেকে ফুল ফল পেতে চাইলে তাদেরকে নিবিড় যত্ন করতে হয়। তাদের সাথে কথা বলতে হয়। তাদের বুজতে হয়, কিভাবে তারা ভালো থাকবে। তাহলেই না ফুল ফল পাওয়া যাবে। পারিবারিক পুষ্টির চাহিদা , টাটকা শাকসবজি ও ফলমূল পেতে ছাদের সহ যার যতটুকু জায়গা আছে সেখানে গাছ লাগানো উচিত। পারিবারিক বন্ধন ও সম্পর্ক দৃঢ় তার জন্য ছাদ বাগান করা উচিত। কারণ কিছুটা সময় পরিবারের সবাই মিলে একত্রিত হয়ে সুন্দর সময় কাটানো যায়।
গাছ আমাদের পরম বন্ধু। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। তাই গাছ লাগাই ,আমরা ভাল থাকি পরিবেশ বাচাই। সবুজ ।সন্তানদের সবুজ প্রকৃতির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে, নিজের ও পারিবারিক প্রশান্তির জন্য ছাদ বাগানটি করা। এছাদ বাগানটিতে রয়েছে ফুল- ফল, শাক-সবজি ,বনসাই ,ক্রাকটাস, দেশীয় বিলুপ্ত প্রজাতি, বিশেষ প্রজাতির সহ নানা প্রজাতির ১৫০ রকমের আছে।

একটা গাছ কে বড় করে তুলতে সন্তানের মত যত্ন করতে হয় ।তাদের সকল অনুভূতি বুঝতে হয়, নিজের মন দিয়ে ।গাছ থেকে ফুল ফল পেতে চাইলে তাদেরকে নিবিড় যত্ন করতে হয়। তাদের সাথে কথা বলতে হয়। তাদের বুজতে হয়, কিভাবে তারা ভালো থাকবে। তাহলেই না ফুল ফল পাওয়া যাবে। পারিবারিক পুষ্টির চাহিদা , টাটকা শাকসবজি ও ফলমূল পেতে ছাদের সহ যার যতটুকু জায়গা আছে সেখানে গাছ লাগানো উচিত। পারিবারিক বন্ধন ও সম্পর্ক দৃঢ় তার জন্য ছাদ বাগান করা উচিত। কারণ কিছুটা সময় পরিবারের সবাই মিলে একত্রিত হয়ে সুন্দর সময় কাটানো যায়।
গাছ আমাদের পরম বন্ধু। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। তাই গাছ লাগাই ,আমরা ভাল থাকি পরিবেশ বাচাই।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

x